বদরগঞ্জে ঐতিহাসিক ঘোড়দৌঁড় প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত


ফারুক হোসেন নয়ন, বদরগঞ্জ(রংপুর) প্রতিনিধিঃ
বাংলা সংস্কৃতি ও ঐতিহ্যের সাথে মিশে আছে “ঘোড় দৌঁড়”খেলা। আবহমান কাল হতে গ্রামিন ঐতিহ্যের প্রতীক ঘোড় দৌঁড় খেলা, এক সময় দেশের নানা প্রান্তে মানুষের মনোরঞ্জনের জন্য প্রচলন থাকলেও দীর্ঘ সময় ধরে খেলাটি আর চোখে পড়েনা।

হঠাৎ ঘোড় দৌঁড় খেলাটি হবে শুনে লোভ সামলাতে না পেরে গত বৃহঃস্পতিবার (১১জানুয়ারি) দুপুরে চলে যাই বদরগঞ্জ-পার্বতীপুর উপজেলার সংযোগ স্থল ধলাপীরের মাজার সংলগ্ন স্থানে।গিয়ে দেখা যায়, চারদিকে উৎসুক জনতার ভীড়।এ যেন দুই উপজেলার মানুষের মিলনমেলা। অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছেন লক্ষাধিক জনগণ কখন তাদের কাঙ্খিত ঘোড় দৌড় খেলা শুরু হবে। বিকেল ৩টায় খেলা শুরু হয়।শাহ মোঃএফতেখারুজ্জামান(ফাখের) এর সভাপতিত্বে ঘোড় দৌড় প্রতিযোগিতায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন-প্রাথমিক ও গনশিক্ষা মন্ত্রি মোস্তাফিজার রহমান এমপি, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- রংপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য আবুল কালাম মোঃ আহসানুল হক চৌধুরি ডিউক।ঘোড় দৌড় প্রতিযোগিতায় অংশ নেন দেশের নানা প্রান্ত হতে আসা ঘোড়া সওয়াররা।এ সময় কথা হয় সি গ্রুপের প্রথম হওয়া নওগাঁ হতে আসা তাসলিমা আক্তার।নওগাঁ জেলার ধামুরহাট উপজেলার বসন্তপুর গ্রামের প্রতিযোগি অষ্টম শ্রেনির ছাত্রি তাসলিমা আক্তার(১৪)জানান,ঘোড় দৌড় খেলতে আমার ভীষন ভাল লাগে। এ কারনে বাবাকে নিয়ে বদরগঞ্জে এসেছি ঘোড় দৌড় প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে।খেলা পরিচলনা কমিটির অন্যতম সদস্য আকরাম আলি সরকার জানান, ঘোড় দৌড় প্রতিযোগিতাটি সম্পন্ন করা হয়েছে চারটি গ্রুপে।প্রাথমিক ও গনশিক্ষা মন্ত্রি মোস্তাফিজার রহমান জানান, গ্রাম বাংলার ঐতিহ্য এই ঘোড় দৌড় খেলাটি দেখতে পেরে আমি আনন্দিত। আমি আশা করবো আয়োজকরা যেন প্রতিবছর খেলাটির আয়োজন করে।#

বদরগঞ্জে ডিজিটাল উন্নয়ন মেলা উপলক্ষে বিতর্ক প্রতিযোগিতায় মহিলা ডিগ্রি কলেজ বিজয়ী

ফারুক হোসেন নয়ন,বদরগঞ্জ(রংপুর)প্রতিনিধিঃ
রংপুরের বদরগঞ্জে ডিজিটাল উন্নয়ন মেলা উপলক্ষে বিতর্ক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এতে বিজয়ী হয় বদরগঞ্জ মহিলা ডিগ্রি কলেজ। শুক্রবার (১২জানুয়ারি)সকালে ৩ দিনব্যাপি ডিজিটাল উন্নয়ন মেলার অংশ হিসেবে মেলা মাঠে উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে বিতর্ক প্রতিযোগিতায় পক্ষে অংশগ্রহন করেন বদরগঞ্জ ডিগ্রি কলেজ ও বিপক্ষ দল বদরগঞ্জ মহিলা ডিগ্রি কলেজের শিক্ষার্থীরা।
বির্তকের বিষয় ছিল “শুধুমাত্র ডিজিটাল বাংলাদেশ গঠনেই উন্নয়নের একমাত্র পথ”
বির্তক অনুষ্ঠানে মডারেটর এর দায়িত্ব পালন করেন বদরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহি অফিসার রাশেদুল হক। বিচারক হিসেবে ছিলেন উপজেলা প্রানি সম্পদ কর্মকর্তা ডাঃ ওমর ফারুক, অতিরিক্ত কৃষি কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর আলম ও আশরাফগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও বদরগঞ্জ প্রেস ক্লাবের সভাপতি মাহাফুজার রহমান।
বদরগঞ্জ মহিলা ডিগ্রি কলেজের প্রতিয়োগিরা হলেন রোজিনা আক্তার (১ম বর্ষ-মানবিক),জয়িতা সরকার(১ম বর্ষ-মানবিক) দলনেতা সিরাতুন জান্নাত কেয়া(১ম বর্ষ-বিজ্ঞান) ও আফসানা মিমি(অতিরিক্ত বিতার্কিক)।
বির্তকে বদরগঞ্জ মহিলা ডিগ্রি কলেজ বিজয়ী হয় এবং সেরা বিতার্কিক নির্বাচিত হন মহিলা ডিগ্রি কলেজের একাদশ বিজ্ঞান বিভাগের ছাত্রি সিরাতুন জান্নাত কেয়া।
বদরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহি অফিসার রাশেদুল হক জানান,মেধা বিকাশে বিতর্ক প্রতিযোগিতা শিক্ষার্থীদের মাঝে গুরুত্বপুর্ন ভুমিকা রাখে। বছরের কোন একটি নির্ধারিত সময়ে এমন প্রতিযোগিতামুলক অনুষ্ঠান উপজেলার সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ছড়িয়ে দেবার চিন্তাভাবনা করছি।#

Print Friendly, PDF & Email

Comments are closed.