সৈয়দপুরে আগুনে পুড়িয়ে স্ত্রী হত্যা, স্বামী গ্রেফতার

জয়নাল আবেদীন হিরো, সৈয়দপুর (নীলফামারী) প্রতিনিধিঃ নীলফামারীর সৈয়দপুরে স্ত্রীকে আগুনে পুড়িয়ে হত্যার অভিযোগে স্বামী জাহিদুল ইসলাম জাহিদকে পুলিশ গ্রেফতার করেছে। শনিবার রাতে নিহত মালেকা বেগমের পুত্র আব্দুল মালেক নিজে বাদী হয়ে বাবাকে আসামী করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছে।

বৃহস্পতিবার গভীর রাতে পারিবারিক কলহের জের ধরে স্বামী জাহিদ শোয়ার ঘরে দাহ্য পদার্থ দিয়ে ওই ঘটনা ঘটায়। পরে আগুনে দগ্ধ মালেকার চিৎকারে প্রতিবেশীরা এগিয়ে এসে বন্ধ ঘর থেকে তাকে উদ্ধার করে রংপুর মেডিকেল হাসপাতালে ভর্তি করে। সেখানে তিন দিন চিকিৎসা শেষে উন্নত চিকিৎসার জন্য কর্মরর্ত চিকিৎসক ঢাকায় নিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দেন। মালেকার পরিবারের উন্নত চিকিৎসার অর্থ না থাকায় তাকে বাড়ীতে নিয়ে আসে। শুক্রবার সন্ধ‌্যায় মালেকাকে পার্বতীপুর মিশন হাসপাতালে ভর্তি করে। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মালেকা মারা যায়। মৃত্যুর পর জাহিদের লোকজন লাশ বাড়ীতে নিয়ে এসে দাফনের চেষ্টা করে। নিহতের লোকজন ও তার ছেলে দাফনে বাঁধা দিয়ে জাহিদকে ঘরে আটকিয়ে পুলিশে খবর দেয়। পুলিশ এসে জাহিদকে গ্রেফতার করে লাশ থানায় নিয়ে যায়।

উল্লেখ যে, মালেকা ও জাহিদের পরকীয়ার কারণে মালেকার পূর্বের স্বামী জহদ্দিকে কোমল পানির সাথে বিষ মিশিয়ে হত্যা করে দুই জনে। জহদ্দির পরিবার হতদরিদ্র হওয়ায় ঘটনাটি ধামা চাপা দেয়া হয়। মালেকার পূর্বের স্বামীর তিন ছেলে মেয়ে ও জাহিদের পূর্বের স্ত্রীর চারটি মেয়ে সন্তান রয়েছে। রবিবার সকালে লাশ ময়নাতন্তের জন্য নীলফামারী মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে এবং জাহিদকে দুপুরে নীলফামারী জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

এ ঘটনায় পুলিশ বিকেলে স্বামী জাহিদকে উপজেলার কামারপুকুর ইউনিয়নের আইসঢাল গ্রামের নিজ বাড়ী থেকে গ্রেফতার করে। সৈয়দপুর থানার অফিসার ইনচার্জ শাহজাহান পাশা মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

Print Friendly, PDF & Email

Comments are closed.