ফরিদপুর রেজওয়ান মোল্লা জেনারেল হাসপাতালে ফ্রি চিকিৎসা পেয়ে খুশি রোগীরা

নিজস্ব প্রতিবেদক, ফরিদপুরঃ
পবিত্র মাহে রমজান উপলক্ষে সি এন্ড বি ঘাট এলাকায় অবস্থিত রেজওয়ান মোল্লা জেনারেল হাসপাতাল এন্ড নার্সিং ইন্সটিটিউটে গতকাল ১ জুন ২০১৮ শুক্রবার দিনব্যাপী ফ্রি চিকিৎসা সেবা আগামি ৮ জুন শুক্রবারের জন্য ফ্রি চিকিৎসার দিন খোলা রেখে এ সপ্তাহের কার্যক্রম সমাপ্ত করেছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

সাশ্রয়ী মূল্যে সর্বোচ্চ সেবা নিশ্চিত করা এবং উন্নত চিকিৎসা সেবার ব্রত নিয়ে প্রতিষ্ঠিত হওয়া হাসপাতালটি সাধারণ মানুষদের ফ্রি চিকিৎসা সেবা প্রদান করে আবারো দৃষ্টান্ত স্থাপন করলো। পূর্ব ঘোষিত নানা প্রচারণার মধ্যে দিয়েই শুক্রবার সকাল থেকেই রেজওয়ান মোল্লা জেনারেল হাসপাতাল এন্ড নার্সিং ইন্সটিটিউটে বিনামূল্যে চিকিৎসা নিতে ভিড় জমায় শত শত মানুষ।

ফরিদপুর শহরের সি এন্ড বি ঘাট এলাকায় অবস্থিত রেজওয়ান মোল্লা জেনারেল হাসপাতাল এন্ড নার্সিং ইন্সটিটিউট টি প্রতিষ্ঠিত হওয়ার পর থেকে সামাজিক দায় ও আর্ত-মানবতার সেবায় নানামুখি চিকিৎসা সেবা দিয়ে ইতোমধ্যে মন কেড়েছে হাজারো মানুষের। ফরিদপুর শহরের নিকটবর্তী পদ্মার প্রতন্ত চর অঞ্চল সীমান্তবর্তী সি এন্ড বি ঘাট এলাকায় হাসপাতালটি অবস্থিত হওয়ায় প্রতিদিন শত শত রোগী এখান থেকে চিকিৎসা সেবা নিয়ে থাকেন। এর আগে চিকিৎসা সেবার জন্য এই চর অঞ্চলের মানুষকে রোগ নিয়ে দৌড়াতে হতো অনেক দূর।

এসময় চিকিৎসা নিতে আসা চর টেপরাকান্দি এলাকার কাজী মাহবুব নামে পঞ্চাশ বছর বয়সী এক ব্যক্তি এই প্রতিবেদকে জানান, বুকে ব্যথা ও শ্বাসকষ্টজনিত সমস্যার কারণে তিনি রেজওয়ান মোল্লা জেনারেল হাসপাতাল এন্ড নার্সিং ইন্সটিটিউটে চিকিৎসা নিতে এসেছেন। তবে এত যত্ন সহকারে ফ্রি চিকিৎসা সেবা প্রদান করার দৃশ্য তার এর আগে কখনো চোখে পড়েনি।

আটত্রিশ দাগ গামের হাবিবুর রহমান নামে আগত আরেক রোগী বলেন, মাইকিংয়ের মাধ্যমে তিনি জানতে পেরেছেন আজ এই হাসপাতালে ফ্রি চিকিৎসা করবেন নামিদামি সব চিকিৎসকরা। তাই সকাল বেলা এসে ফ্রি ক্যাম্পেইন বুথে নিজের নাম ঠিকানা দিয়ে রেজিস্ট্রেশন করিয়েছেন। এরপর চিকিৎসক তাকে অত্যন্ত যত্নসহকারে পর্যবেক্ষণ করেন। ফ্রিতেই করানো হয় ডায়বেটিস ও জন্ডিস টেস্ট। এধরনের চিকিৎসা সেবা পেয়ে তিনি সত্যিই অভিভূত।

ডিগ্রির চর এলাকার ফোরকান উদ্দিন জানান, প্রথমে এসে অনেক মানুষকে লাইনে দাড়িয়ে নাম লেখাতে করতে দেখে তিনি সঠিক চিকিৎসা সেবা পাবেন কি না এ নিয়ে হতাশ ছিলেন! কিন্তু এখানে যে ক্যাম্পেইন বুথ আছে সেখানে অত্যন্ত শৃঙ্খলার সাথে তিনি নিজের নাম নিবন্ধন করিয়েছেন।

তিনি আরও বলেন, আমার দৌড়ালে ও ভারি কাজ করলে শ্বাস-প্রশ্বাসের সমস্যা হত। বুকে ব্যথা করতো। এখানে দেশি অনেক ভালো মানের চিকিৎসকরা রোগী দেখেন অল্প খরচে। এর আগেও তিনি আসতে চেয়েছিলেন। তবে পরবর্তী সময়ে তাদের এলাকায় আজকের ক্যাম্পেইন সম্বন্ধে হাসপাতালের লোকজন লিফলেট বিলি করতে গেলেই তিনি জানতে পারেন। তাই আজকের সুযোগটি তিনি হাতছাড়া করতে চাননি।

সি এন্ড বি ঘাটের এলাকার চা দোকানি নজরুল ইসলাম বুকের ব্যথা নিয়ে এসেছেন এই হাসপাতালে ফ্রি হার্ট চেকআপ করাতে। অনেক দিন ধরে হৃদরোগ জনিত সমস্যা নিয়ে ভুগলেও তিনি দারিদ্রতার কারণে তিনি ভালো চিকিৎসক দেখাতে পারেননি। কিন্তু আজ এখানে এসে সম্পূর্ণ বিনা খরচে চিকিৎসকের পর্যবেক্ষণ ও চেকআপ করাতে পেরে ভীষণ খুশি তিনি। তবে ভবিষ্যতেও আরো দীর্ঘ মেয়াদে যাতে এধরনের সেবা প্রদান করা হয় সে জন্য হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের নিকট অনুরোধ করেন তিনি।

এদিকে হাসপাতালের এর দায়িত্বে থাকা ইমাদ মামুন বলেন, ফ্রি ক্যাম্পেইনে সকাল থেকেই রোগীদের সমাগম ছিলো চোখে পড়ার মত। ডায়বেটিস ও জন্ডিস টেস্ট ফ্রি থাকায় এসময় তাদের রিসিফসনের কর্মী ও ল্যাবের টেস্ট কর্মীরা কথা বলারও ফুরসত পাচ্ছিলেন না। এ পর্যন্ত তারা প্রায় দুইশতকের বেশি রোগীকে বিনা খরচে চিকিৎসার সেবা প্রদান করা হয়েছে বলে জানান তিনি। #

Print Friendly, PDF & Email

Comments are closed.