দুই মাসে ৮০টি মামলায় আটক ৯৪ মাদকমুক্ত শহর গড়তে বদ্ধ পরিকর বগুড়া শেরপুর থানা পুলিশ

অশোক সরকার (বগুড়া) প্রতিনিধি : ‘চলো যাই যুদ্ধে, মাদকের বিরুদ্ধে’ সারাদেশে মাদকের বিরুদ্ধে শুরু হওয়া এই অভিযানে কৃতিত্বের স্বাক্ষর রেখেছে শেরপুর থানা পুলিশ। জানুয়ারি ও ফেব্রুয়ারি এই দুই মাসে বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে আটক করেছে শতাধিক মাদক ব্যবসায়ী ও সেবনকারীকে এবং থানায় দায়ের করা হয়েছে ৮০টি মাদক মামলা। বিভিন্ন সময় বিভিন্ন স্থানে অভিযানে উদ্ধার করা হয়েছে ইয়াবা, ফেন্সিডিল, গাঁজা, হেরোইন সহ নানা মাদকদ্রব্য।বগুড়া জেলার পুলিশ সুপার আলী আশরাফ ভুঞার নির্দেশে শেরপুর সার্কেল এর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার গাজিউর রহমানের দিক নির্দেশনায় শেরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মো. হুমায়ুন কবীর ও পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) বুলবুল ইসলামের সার্বিক তত্ত্বাবধানে শেরপুর থানার চৌকস পুলিশ কর্মকর্তারা উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় মাদক বিরোধী অভিযান চালিয়ে গত দুই মাসে এই অর্জন করেছেন।শেরপুর থানা সুত্রে জানা যায়, গত ফেব্রুয়ারী মাসে শেরপুর থানায় ৫২টি মাদক মামলায় ৬৪ জন কে গ্রেপ্তার করা হয়। এ সময় তাদের নিকট থেকে ২৬৪ পিস ইয়াবা, ১ কেজি ৩০০ গ্রাম গাঁজা, ১০ বোতল ফেন্সিডিল, ১৩.৫০ গ্রাম হেরোইন ও ৩৩ পিস ইনজেকশন এ্যাম্বুল উদ্ধার করা হয়। জানুয়ারী মাসে ২৮টি মামলায় ৩০ জন মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেপ্তার করা হয়। এ সময় তাদের নিকট থেকে ১৩৪ পিস ইয়াবা, ৮০০ গ্রাম গাঁজা, ১২১ বোতল ফেন্সিডিল ও ৫.৫০ গ্রাম হেরোইন উদ্ধার করা হয়। শেরপুর থানায় অফিসার ইনচার্জ মো. হুমায়ুন কবীর ২০১৮ সালের ৩ আগষ্ট যোগদানের পর থেকেই মাদক বিরোধী অভিযানে জোর দেন। এজন্য তিনি উপজেলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ বিভিন্ন জায়গায় মাদক বিরোধী সমাবেশ ও সচেতনতামূল আলোচনা সভা করে গড়ে তুলেন শক্ত নেটওয়ার্ক।পুলিশের অভিযানে উপজেলার চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ীদের অনেকেই পেশা ছেড়ে দিতে বাধ্য হয়েছে। এ ব্যাপারে অফিসার ইনচার্জ মো.হুমায়ুন কবীর জানান, মাদক কারবারীদের সাথে কোন আপোষ নয় ও পুলিশ মাদকের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতি গ্রহন করেছে। মাদক ব্যবসায়ী ও সেবনকারী যতি কোন রাজনৈতিক নেতা বা দলের সাথে জড়িত হলেও যত শক্তিশালী হোক না কেন তাদের ছাড় নেই। মাদক কারবারীদের কোন অন্য কোন পরিচয় থাকতে পারে না, সমাজে তাদের কোন স্থান নেই। শেরপুরসহ সারাদেশে মাদক বিরোধী অভিযান জোরদার হবার পর মাদক সিন্ডিকেট ভেঙ্গে পড়েছে। পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) বুলবুল ইসলাম জানান, যারা মাদক বিক্রি ও সেবনের সাথে জড়িত তাদের গ্রেপ্তার করে মামলা দেয়া হচ্ছে। এ ব্যাপারে কোন ছাড় নেই। কেননা, দেশের উন্নয়নের জন্য মাদক মুক্ত সমাজ গড়ে তোলার কোন বিকল্প নেই। কারন মাদকের কারনে দেশের শিক্ষত বেকার যুবসমাজ ধ্বংসের দিকে চলে যায়।

Comments are closed.

সর্বশেষঃ