ছাত্রলীগের নেতাকে সিগারেট ধরানোর জন্য দিয়াশলাই না দেওয়ায় হামলা,আহত-৫ আটক-৪

কাজী শাহ্ আলম, লালমনিরহাট প্রতিনিধিঃ- লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় ছাত্রলীগের নেতাকে সিগারেট ধরানোর জন্য দিয়াশলাই (ম্যাচ) না দেওয়াকে কেন্দ্র করে হামলায় গ্রাম পুলিশসহ আহত ৫। পুলিশ -৪ জনকে আটক করেছে।

জানাগেছে,উপজেলার পাটিকাপাড়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি বাঁধন পাটোয়ারী মঙ্গলবার সিগারেট

ধরানোর জন্য পাটিকাপাড়া ইউনিয়নের মনিরুজ্জামানের ছেলে আরাফাত (১১) এর কাছে দিয়াশলাই চায়। আরাফাত দিয়াশলাই না দেয়ায় তাকে মারধর করে বাঁধন পাটোয়ারী। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে বুধবার দুপুরে পাটিকাপাড়া ইউনিয়নের শিমুলতলায় আরাফাতের বাবা মনিরুজ্জামানের উপর হামলা চালায় ছাত্রলীগ নেতা ও তার ভাই। স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে হাতীবান্ধা হাসপাতালে নিয়ে আসলে হাসপাতালেও হামলা চালায় বাঁধন পাটোয়ারী ও তার ভাই। হামলায় উক্ত ইউনিয়নের গ্রাম পুলিশ নুর মোহাম্মদ ও আমজাদ হোসেন মনিরুজ্জামান সহ উভয় পক্ষের অত্যান্ত ৫ জন আহত হয়েছে। আহত গ্রাম পুলিশ নুর মোহাম্মদকে উন্নত চিকিৎসার জন্য রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। খবর পেয়ে হাতীবান্ধা থানা পুলিশ হাসপাতালে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন। পরে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ছাত্রলীগ সভাপতি বাঁধন পাটোয়ারী, তার ভাই সাগর পাটোয়ারীসহ ৪ জনকে গ্রেফতার করেন।

হাতীবান্ধা থানা অফিসার ইনচার্জ ওমর ফারুক সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন পুরো ঘটনা তদন্ত করে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। #