কুড়িগ্রামে ভ্রাম্যমান আদালত কর্তৃক ইটভাটা মালিককে জেল ও ৫ লাখ টাকা জরিমানা

কুড়িগ্রাম : কুড়িগ্রামে অনুমোদন ছাড়া ইট ভাটা প্রস্তুত ও ইট তৈরির কার্যক্রম পরিচালনার দায়ে এক ইট ভাটা মালিককে ৫ লাখ টাকা জরিমানা ও দুই মাসের কারাদন্ড, অনাদায়ে আরও দুই মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমান আদালত।বৃহস্পতিবার দুপুরে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক সুদীপ্ত কুমার সিংহ এ রায় দেন।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সুদীপ্ত কুমার সিংহ জানান, কোনও ধরণের পূর্বানুমতি ছাড়া জেলার সদর উপজেলার ভোগডাঙ্গা ইউনিয়নের মধ্যকুমরপুর এলাকায় এম.এইচ.বি ব্রিকস নামে একটি ইট ভাটা প্রস্তুত করে ইট তৈরির কার্যক্রম শুরু করেছিলেন ভাটা মালিক আব্দুর রব (গনি)। তার কাছে ভাটার অনুমোদনের কাগজপত্র দেখতে চাইলে তিনি তা দেখাতে ব্যর্থ হন। পরে ইট প্রস্তুত ও ভাটা স্থাপন (নিয়ন্ত্রণ) অধ্যাদেশ/ আইন ২০১৩ এর ০৪ ধারা ভঙ্গের দায়ে তাকে দুই মাসের কারাদন্ড ও পাঁচ লাখ টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও দুই মাসের কারাদন্ড দেওয়া হয়।

কুড়িগ্রাম জেলা প্রশাসন কর্তৃক পরিচালিত ভ্রাম্যমান আদালতের এ ধরণের অভিযান পরিচালনায় স্থানীয় জনগণ ও জনপ্রতিধিরা সন্তোষ প্রকাশ করেছেন। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ভ্রাম্যমান আদালত কর্তৃক বন্ধ করে দেয়া এমএইচবি ইটভাটা সংলগ্ন এক প্রতিবেশী বলেন, অবৈধ এই সকল ইটভাটার কারণে আমাদের আবাদ কিস্তি ভেস্তে গেছে। গাছগাছালি সব নষ্ট হয়ে গেছে। এমনকি শাকসবজি চাষ করেও আমরা খেতে পারছিনা।

স্থানীয় এলাকাবাসী জেলা প্রশাসনের এ ধরণের পদক্ষেপে কুড়িগ্রাম জেলা প্রশাসক সহ সংশ্লিষ্ঠ কতৃপক্ষকে ধন্যবাদ প্রদান সহ কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন।