পার্বতীপুরে পাইপ লাইন পরিদর্শনে ভারতীয় হাই কমিশনার রীভা গাঙ্গুলী দাশ


স্টাফ রিপোর্টার : ইন্ডিয়া বাংলাদেশ ফ্রেন্ডশিপ নির্মাণ প্রকল্পের সাইট পরিদর্শনের জন্য শুক্রবার বিকেলে বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতীয় হাই কমিশনার রীভা গাঙ্গুলী দাশ পার্বতীপুরে আসেন। তার সংগে ছিলেন সহকারী ভারতীয় হাই কমিশনার শ্রী সঞ্জিব কুমার ভাট্রি, এই প্রকল্পের পিডি টিপু সুলতান, জেলা প্রশাসক মাহমুদুল আলম, পদ্মা ও মেঘনা ওয়েল কোম্পানীর ব্যবস্থাপনা পরিচালক যথাক্রমে মাসুদুর রহমান, মীর সাইফুল্লাহ আল খালিদ ও ডিপো ইনচার্জ আজম খান প্রমূখ।

সূত্রমতে এই প্রকল্প বাস্তবায়নের কাজ দ্রতগতিতে এগিয়ে চলেছে। ভূমি মন্ত্রনালয়ের অনুমোদন পেলেই বাংলাদেশে ১২৫ কি.মি এর পাইপ লাইন বসানোর কাজ শুরু হবে বলে তারা জানিয়েছেন।

জানা গেছে, ভারতের শিলিগুডি নোমানীগড় রিফাইনারী পয়েন্ট থেকে পাইপ লাইনের মাধ্যমে দিনাজপুরের পার্বতীপুর রেলহেড ডিপোতে ডিজেল আসবে। ভারত অংশে পাইপ লাইনের দৈর্ঘ ১৩০ কি.মি, বাংলাদেশ অংশে ১২৫ কি.মি ।

পাইপ লাইনের ব্যাস ১০ ইঞ্চি। জালানী ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রনালয়ের উদ্যোগে ভারতের গ্রান্ট ইন প্রোগামের ভারতের ৩০৩ কোটি রুপী ও বাংলাদেশের ১৫০ কোটি টাকা ব্যয়ে প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করছেন বিপিসি ও নোমানীগড় রিফাইনারী লিমিটেড । প্রচলিত সরবরাহ ব্যবস্থার পরিবর্তে বাংলাদেশের উত্তরাঞ্চলে দ্রুত, সহজ ও ব্যয় সাশ্রয়ী উপায়ে জ্বালানী সরবরাহের জন্যই এই প্রকল্পটি হাতে নিয়েছে দুই বন্ধুপ্রতিম দেশ ।

শুক্রবার বিকাল ৩ টায় পার্বতীপুর পেট্রলিয়াম কর্পোরেশন এর তেল হেড ডিপোতে প্রবেশ করলে তাকে মডেল থানার পক্ষ থেকে গার্ড অব অনার প্রদান করা হয়। সেসময় তার পাশে ছিলেন দিনাজপুরের জেলা প্রশাসক মাহমুদুল হাসান, নব নিযুক্ত পুলিশ সুপার আনোয়ার হোসেন,এএসপি পহন চাকমা, মডেল থানার ওসি মোখলেছুর রহমান, উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম- সাধারন সম্পাদক আমজাদ হোসেন প্রমুখ। পরে পাইপলাইনে ভারত থেকে এই ডিপোতে জ্বালানী তেল সরাসরি সরবরাহের প্রক্রিয়াধীন বিষয় নিয়ে পেট্রোলিয়াম কর্পোরেশন এর উর্ধতন কর্তৃপক্ষের সাথে আলোচনায় মিলিত হন তিনি। #