ঝুঁকি নিয়েই কাজ করছেন রেলওয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা


অনলাইন ডেস্ক : করোনাভাইরাসে আক্রান্তের ঝুঁকিতেই নিয়মিত কাজ করছেন পূর্বাঞ্চল রেলওয়ের অপারেশনাল কাছে নিয়োজিত কর্মকর্তা-কর্মচারীরা! প্রতিদিন চলাচল করছে তেলবাহী ট্যাংক, কন্টেইনার ও খাদ্যবাহী ট্রেন। সারা দেশের যাত্রীবাহী ট্রেন চলাচল বন্ধ থাকলেও আন্তঃনগর বা মেইন লাইনে প্রতিদিন চলাচল করছে ৮টি ট্রেন। চট্টগ্রাম বন্দর থেকে খালাসকৃত মালামালগুলো দেশের বিভিন্ন প্রান্তে খাদ্য সরবরাহ, তেল ও কন্টেইনারবাহী বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ ট্রেনগুলো নিয়মিত চলাচল করছে। চট্টগ্রাম বন্দর এবং সিজিপিওয়াই থেকে ফৌজদারহাট হয়ে ঢাকাসহ বিভিন্ন স্থানে ট্রেন চলাচলে মেইন লাইনগুলোর স্টেশন মাস্টার, বন্দরের ইয়ার্ড মাস্টার, ওয়েম্যান ও পয়েন্টসম্যানসহ দায়িত্বশীল কর্মকর্তা-কর্মচারীরা নিয়মিত ডিউটি পালন করছে। ট্রেন চলাচলের নিরাপত্তায় ২৪ ঘণ্টা খোলা রাখা রয়েছে চট্টগ্রামের পাহাড়তলী ও সিআরবিস্থ ট্রেন কন্ট্রোল রুমও। এতে ঝুঁকি ও নিরাপত্তাবলয়ের জন্য পারসোনাল প্রটেকশন ইক্যুইপমেন্ট (পিপিই), প্রয়োজনীয় খাবার এবং যাতায়াত ব্যবস্থা নিশ্চিত করেনি রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ। ফলে নিয়মিত শঙ্কার মধ্যেই দায়িত্ব পালন করছেন এসব দায়িত্বশীল কর্মকর্তা-কর্মচারীরা।নাম প্রকাশ না করার শর্তে একাধিক দায়িত্বশীল কর্মকর্তা-কর্মচারীরা বলেন, করোনাভাইরাসের কারণে ট্রেন চলাচল বন্ধের মধ্যেও দায়িত্ব পালনকারী ইয়ার্ড মাস্টার, মেইনলাইনের বিভিন্ন স্টেশন মাস্টার, ওয়েম্যান ও পয়েন্টসম্যানদের নিরাপত্তার বিষয়টি অবহেলিত। যাতায়াতে সমস্যা, খাবারসহ নানাবিধ সমস্যা সংকটের মধ্যে তাদের দায়িত্ব পালন করতে হচ্ছে।