ঝালকাঠির কাঠালিয়ায় মেয়ের পিরির আঘাতে পিতার মৃত্যু

রাজাপুর (ঝালকাঠি) প্রতিনিধি: ঝালকাঠির কাঠালিয়ায় পারিবারিক কলহের জেড়ে কলেজ পড়–য়া মেয়ের ছুড়েমারা পিরির আঘাতে খিতিশ চন্দ্র শীল (৭০) নামের এক বৃদ্ধ পিতার মৃত্যু হয়েছে।

মঙ্গলবার (১২মে) বিকেলে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

নিহত খিতিশ চন্দ্র শীল উপজেলার আমুয়া ইউনিয়নের বাঁশবুনিয়া গ্রামের মৃত কামিনী চন্দ্র শীলের ছেলে। এ ঘটনায় পুলিশ কাউকে আটক করতে সক্ষম হয়নি।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, সকালে খিতিশ চন্দ্র শীল তার ছেলেকে কাজ করতে বললে পিতার সাথে কলহ হয়। কলহের এক পর্যায় মেয়ে শুকলা রানী পুতুল (১৭) ক্ষিপ্ত হয়ে বসার পিরি ছুড়ে মারে। এতে পিতা খিতিশ চন্দ্র শীলের মাথায় লাগলে গুরুতর আহত হয় সে। পরে আহত অবন্থায় খিতিশ চন্দ্র শীলকে উদ্ধার করে আমুয়া স্বাস্থ্য কেন্দ্রে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে অবস্থার অবনতি হলে বরিশাল শেবাচিমে নেওয়া হলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত হয়।

কাঠালিয়া থানা পুলিশ জানায়, এ বিষয়ে মামলার প্রস্তুতি চলছে এবং লাশ ময়না তদন্তের শেষে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে।