নিজ ছবিযুক্ত ছাপানো ব্যতিক্রমী মাস্ক


অনলাইন রিপোর্ট : ভাইরাসের সংক্রমণ রোধে এন-৯৫ বা কেএন-৯৫ নয়, স্টুডিওতে গ্রাহকদের ছবি তুলে তাদের মুখের আদলেই বানানো হচ্ছে মাস্ক।
এন-৯৫ বা কেএন-৯৫ নয়, নিজের মুখের ছবি ছাপানো মাস্কই এখন পছন্দ ভারতের চেন্নাইয়ের বাসিন্দাদের। সেখানে একটি স্টুডিওতে গ্রাহকদের ছবি তুলে তাদের মুখের আদলেই বানানো হচ্ছে মাস্ক। আর এই মাস্ক কিনতে প্রতিদিনই স্টুডিওতে ভিড় করছেন ক্রেতারা।

সারাবিশ্বে সার্জিক্যাল ও এন-৯৫ মাস্কের চাহিদা যখন তুঙ্গে, তখন ভিন্ন ধরনের এক মাস্ক বানিয়ে চমক দেখালো চেন্নাইয়ের এসটিএম স্টুডিও।

গ্রাহকদের মুখের ছবি তুলে, সেই ছবি বসানো হচ্ছে মাস্কে। ফলে এই মাস্ক পরলে দূর থেকেও চিনতে পারবে পরিচিতরা। নতুন ধরনের এই মাস্ক পেয়ে খুশি ক্রেতারা।

মাস্ক কিনতে আসা গ্রাহকরা জানান, নতুন এই মাস্ক পরে বেশ আরাম লাগে। আর দেখতেও সুন্দর। কাপড়টাও খারাপ না, ভালোই।

টানা লকডাউনে স্টুডিও ব্যবসায় মন্দা চলছে। এমন সময় এই অভিনব আইডিয়া আসে স্টুডিওটির মালিক অন্ত আমালরাজের মাথায়।

স্টুডিওর মালিক অন্ত আমালরাজ বলেন, ‘লকডাউনে ব্যবসায় মন্দা চলছে। খুব চিন্তায় ছিলাম কিভাবে আয় বাড়ানো যায়। হঠাৎ এমন মাস্ক বানোনোর আইডিয়া মাথায় আসে। সবার নজরে আসার পর ভিড় বাড়তে থাকে, প্রতিদিন মাস্ক কিনতে আসছে অনেকে।

শুধু নিজের ছবি নয়, কেউ চাইলে মাস্কে বসাতে পারবেন বিশ্বনেতা বা সেলিব্রেটিদের ছবিও। শুরুতে মাস্ক পড়া শুরু করেন স্টুডিওর মালিক ও কর্মচারীরা। এরপর তা অন্যদের কাছেও জনপ্রিয় হয়ে উঠে। #