রেলওয়ে’র ভিন্ন পরিবেশে ট্রেন যাত্রা


অনলাইন ডেস্ক : চট্টগ্রাম রেলওয়ে স্টেশনে ঢোকার সময় ছিলো না কোনো জটলা। তিন মিটার দূরত্ব মেনে ঢুকতে হয়েছে স্টেশনে। মুখে মাস্ক, ট্রেনে ওঠার সময় প্রত্যেকের হাত হ্যান্ড স্যানিটাইজার দিয়ে পরিষ্কার করতে হয়েছে।
এ চিত্র রোববার (৩১ মে) সকাল ৭টার সুবর্ণ এক্সপ্রেস ট্রেনের যাত্রীদের। ট্রেনটি ঠিক সময়ে ঢাকার উদ্দেশে ছেড়ে গেছে।
স্টেশনে গিয়ে দেখা গেছে, সুবর্ণ এক্সপ্রেস ট্রেনে প্রত্যেকটি বগি পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন। জীবাণুনাশক স্প্রে করা হয়েছে পুরো ট্রেনে। ওয়াশরুমে রাখা হয়েছে হ্যান্ড স্যানিটাইজার, টিস্যু। ট্রেনের কর্মচারীরা সবাই হাতে গ্লাভস, মুখে মাস্ক পড়েছেন। এ যেন অন্যরকম পরিবেশ। এমন ব্যবস্থাপনায় যাত্রীরাও সন্তুষ্ট।
সকাল ৭টায় ট্রেন ছাড়ার এক ঘণ্টা আগে যাত্রীরা আসতে শুরু করেন। স্টেশন থেকে ট্রেনে ওঠার আগ পর্যন্ত কাউকে জটলা করতে দেয়নি জিআরপি পুলিশ ও আরএনবির সদস্যরা। ট্রেনে দুজনের সিটে একজনকে বসানো হয়েছে।
সুবর্ণ এক্সপ্রেস ট্রেনের যাত্রী রাকিব হাসান বলেন, রেলওয়ের এমন ব্যবস্থাপনায় আমি খুশি। তারা স্বাস্থ্য সুরক্ষার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। পাশাপাশি দুটি সিটে একজন বসেছেন, ট্রেনের ভেতর পরিবেশ ছিলো চমৎকার।
রেলওয়ে স্টেশন ম্যানেজার রতন কুমার চৌধুরী বলেন, সুবর্ণ এক্সপ্রেস ট্রেনে ৪৫৪ সিটের মধ্যে বিক্রি হয়েছে ৩৮৭টি। এই ৩৮৭ জন যাত্রী নিয়ে ট্রেনটি ঠিক সময়ে ঢাকার উদ্দেশে ছেড়ে যায়। একইভাবে বিকেল ৫টায় সোনার বাংলা ও রাত সাড়ে ১০টায় উদয়ন চট্টগ্রাম ছেড়ে যাবে।