কুড়িগ্রামে প্রধান নদ-নদীর পানি বৃদ্ধিতে বন্যার আশঙ্কা


কুড়িগ্রাম সংবাদদাতা : বৃষ্টি ও উজানের ঢলে কুড়িগ্রামে ব্রম্মপুত্র, ধরলা, তিস্তা, দুধকুমরসহ ১৬টি নদ-নদীর পানি বৃদ্ধি পেয়েছে। গত ২৪ ঘন্টায় কুড়িগ্রামের সেতু পয়েন্টে ধরলার পানি ৩৮ সেন্টিমিটার, নুনখাওয়া পয়েন্টে ব্রম্মপুত্রের পানি ১৪ সেন্টিমিটার এবং কাউনিয়া পয়েন্টে তিস্তার পানি ৬ সেন্টিমিটার বৃদ্ধি বিপদসীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

ফলে যাত্রাপুর, নুনখাওয়া, নারায়ণপুর ও সাহেবের আলগা ইউনিয়নের অন্তত ৩০টি চরে পানি ঢুকে পড়েছে। তলিয়ে গেছে নি¤œাঞ্চলের উঠতি ফসল বাদাম, তিল, কাউন, পাট আমন বীজতলাসহ বিভিন্ন ধরনের শাক-সবজির ক্ষেত। পানি বৃদ্ধির সাথে সাথে দেখা দিয়েছে নদ-নদীর ভাঙ্গন। বিভিন্ন স্থানে ব্যহত হয়েছে যোগাযোগ ব্যবস্থা। দুর্ভোগে পড়েছে পানি বন্দি মানুষজন ।

এব্যাপারে কুড়িগ্রাম পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মো: আরিফুল ইসলাম বলেন, কুড়িগ্রামে নদ-নদীর পানি বৃদ্ধি অব্যাহত রয়েছে। চলতি মাসের ২৯ তারিখ এবং জুলাইয়ের প্রথম সপ্তাহে ব্রহ্মপুত্র নদের পানি বিপদসীমা অতিক্রম করতে পারে। তখন ব্রহ্মপুত্রের অববাহিকার চিলমারী, উলিপুর, রৌমারী, রাজিবপুর উপজেলা ও নাগেশ্বরীর কিছু অংশ বন্যা কবলিত হয়ে পড়তে পারে। আর পানি বৃদ্ধি পাওয়ার ফলে নদী ভাঙ্গনের মাত্রা কিছুটা কমেছে। #

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *