ডিমলায় ট্রাংকের ভিতর থেকে অজ্ঞাত যুবকের মরদেহ উদ্ধার


আসাদুজ্জামান পাভেল,ডিমলা (নীলফামারী) প্রতিনিধি : নীলফামারী জেলার ডিমলায় ট্রাংকের ভিতর থেকে এক অজ্ঞাত যুবকের (২৫) গলিত মৃতদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ ৷বৃহস্পতিবার (১৬ জুলাই) দুপুরে ডিমলা -ডোমার সড়কের বালাপাড়া ইউনিয়নের দক্ষিন সুন্দরখাতা (৯ নং ওয়ার্ড) শৈলারঘাট সংলগ্ন নতুন বাজার (ফরেস্ট বাজার) এলাকা থেকে পিবিআই ও সিআইডি পুলিশের সহযোগীতায় এএসপি (ডোমার -ডিমলা সার্কেল) জয়ব্রত পালের নেতৃত্বে পুলিশের একটি চৌকস দল ট্রাংকের ভিতর থেকে যুবকের গলিত মৃতদেহ উদ্ধার করে ৷ এর আগে বুধবার রাতে ডিমলা উপজেলার বালাপাড়া ইউনিয়নের দক্ষিন সুন্দরখাতা ৯নং ওয়ার্ডের ডোমার-ডিমলা সড়কের নতুন বাজার ফরেষ্ট বাগান সংলগ্ন রাস্তার পাশে জনৈক আখতারুজ্জামান বৈদ্য নামে এক ব্যাক্তি ট্রাঙ্ক পড়ে থাকতে দেখে এলাকাবাসী ও পরে পুলিশে খবর দিলে রাতেই পুলিশ এসে ঘটনাস্থলে অবস্থান নিয়ে এলাকাটি ঘিরে রাখে।

সকালে রাস্তায় ট্রাঙ্ক পড়ে থাকার ঘটনাটি প্রকাশ হলে ডিমলা-ডোমার থেকে হাজার হাজার মানুষ ট্রাঙ্কের ভিতরে কি রয়েছে তা দেখতে ঘটনাস্থলে ভিড় জমায়। সকাল থেকে এএসপি জয়ব্রত পালের নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থলে অবস্থান করে জায়গাটি ঘিরে রাখে। সকাল থেকেই পুলিশের ডিবি, সিআইডি ও পিবিআইর দল ঘটনাস্থলে আসে। এদিকে উৎসুক জনতাকে সামলাতে বেগ পেতে হয় পুলিশ সদস্যদের ৷ বৃহস্পতিবার দুপুরে এএসপি জয়ব্রত পালের নেতৃত্বে পুলিশের দল ট্রাঙ্কের তালা ভেঙ্গে দেখতে পান ট্রাঙ্কের ভিতরে কাপড়ে মোড়ানো অবস্থায় একটি মৃতদেহ। ট্রাঙ্ক থেকে কাপড় সরিয়ে দিলে বেরিয়ে পরে এক যুবকের গলিত মৃতদেহ। মৃতদেহের বিকট গন্ধে অনেকেই এলাকা ছেড়ে পালিয়ে যান আবার অনেকেই বমি করতে থাকেন।

ট্রাঙ্কের ভিতর থেকে প্রেসক্রিপসন, বালিশ, প্যান্ট, পেটবেল্ট, ক্যাপ ও একটি লাল জ্যাকেট পাওয়া যায়। প্রেসক্রিপসনে নামের জায়গায় জিয়াউর লেখা রয়েছে।

এএসপি জয়ব্রত পাল যুবকের গলিত মৃতদেহ উদ্ধারের বিষয়েে বলেন , এ ঘটনায় তদন্ত চলমান রয়েছে। এখনো যুবকের পরিচয় পাওয়া যায়নি।’

ডিমলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মফিজ উদ্দিন শেখ এ ঘটনায় থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে জানিয়ে বলেন, ঘটনাটি গুরুত্বের সাথে তদন্ত করা হচ্ছে।