পার্বতীপুরে করোনায় আরও একজনের মৃত্যু


সোহেল সানী, পার্বতীপুর ;
দিনাজপুরের পার্বতীপুরে করোনাভাইরাস সংক্রমণের উপসর্গ নিয়ে নুরুল হক (৫০) মারা গেছেন। মৃত্যুর একদিন আগেই তার নমুনা সংগ্রহ করা হয়। মঙ্গলবার পাওয়া নমুনা পরীক্ষার ফলাফলে তার করোনা পজিটিভ পাওয়া যায়। এ নিয়ে পার্বতীপুরে করোনায় এ পর্যন্ত তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে একজন নারী ও দুইজন পুরুষ। আজ বুধবার আরও তিনজনের করোনা শনাক্ত হয়েছেন।

পার্বতীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগ জানিয়েছেন, গত ১৩ এপ্রিল থেকে এ পর্যন্ত ৮২৬ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়। এপর্যন্ত পার্বতীপুরে করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ১১১ জনে দাড়িয়েছে। এর মধ্যে করোনাকে জয় করে সুস্থ হয়ে বাড়িতে ফিরেন ৬৩ জন। করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৩ জন। করোনা আক্রান্ত রোগীরা বাড়িতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রয়েছেন।

বর্তমানে পার্বতীপুরে দিন দিন করোনা আক্রন্তের সংখ্যা যেমন বৃদ্ধি পাচ্ছে। অন্যদিকে মানুষের মাঝে মাস্ক ব্যবহার না করা, সামাজিক দুরত্ব ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে না চলার প্রবনতা বাড়ছে।

নুরুল হক গত বুধবার (১৫ জুলাই) করোনার উপসর্গ নিয়ে দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হন। গত রবিবার (১৯ জুলাই) তার নমুনা নেয়া হয়। গত ২০ জুলাই সোমবার ভোরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। গত মঙ্গলবার ২১ জুলাই তার করোনা পজেটিভ রিপোর্ট পাওয়া যায়। নুরুল হকের বাড়ী পার্বতীপুর উপজেলার বেলাইচন্ডি ইউনিযনের বুড়িরহাট গ্রামে। তিনি বেলাইচন্ডি বাজারের হার্ডওয়ার ব্যবসায়ী।

এবিষয়ে পার্বতীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ মোঃ আব্দুল্লাহের মাফী বলেন, করোনা পজেটিভ রিপোর্ট পাওয়ার সাথে সাথে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়। রোগীকে হোমকোয়ারেন্টাইনে থাকতে বলা হচ্ছে। সাধারন মানুষ মাস্ক ব্যবহার ও স্বাস্থ্যবিধি না মানায় করোনা সংক্রমণের ঝুকি আরও বাড়ছে বলে তিনি উল্লেখ করেন। #