রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের যন্ত্রপাতি তৈরির কাজ থেমে নেই


অনলাইন রিপোর্ট : করোনা পরিস্থিতির মধ্যেও থেমে নেই রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের জন্য নির্মাণাধীন বিভিন্ন যন্ত্রপাতি নির্মাণের কাজ। এই নির্মাণ প্রক্রিয়ার অগ্রগতি দেখার জন্য রাশিয়ায় নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত কামরুল আহসানগত ২৮ জুলাই পিজেএসসিজিও পোডোলস্ক এবং ২৯ জুলাই জেএসসি রাসু নামে বৃহত্তর মস্কোস্থ দুটি কারখানা পরিদর্শন করেন। তার সফরের পর পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে এক প্রেস বিজ্ঞপ্তি পাঠিয়ে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

পোডোলস্ক কারখানা পরিদর্শনের শুরুতে রাষ্ট্রদূত কামরুল আহসানকে প্রতিষ্ঠানটির মহাপরিচালক আনাতোলি এম স্মিরভ নির্মাণ কাজের অগ্রগতি সম্পর্কে অবহিত করেন। বাংলাদেশ সরকারের সর্বোচ্চ অগ্রাধিকারপ্রাপ্ত এই প্রকল্পটির কাজ আন্তর্জাতিক মান বজায় রেখে যথাসময়ে সম্পন্ন করার ওপর বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত সমাধিক গুরুত্বারোপ করেন। সভা শেষে কারখানাটির বিভিন্ন বিভাগে রূপপুর প্রকল্পের জন্য নির্মাণাধীন যন্ত্রাংশ পরিদর্শন করা হয়।
রাশিয়ায় চলছে রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের যন্ত্রপাতি তৈরির কাজ

জিওপোডোলস্ক কারখানাটি শতাধিক বছর ধরে পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র, তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্র, তেল ও গ্যাস প্রক্রিয়াকরণ শিল্প এবং পারমাণবিক শক্তিচালিত জাহাজের জন্য গুরুত্বপূর্ণ যন্ত্রাংশ তৈরি করছে। এটি রোসাটম এর কারিগরি বিভাগ অ্যাটম-অ্যানার্গোম্যাশ এর অধীন একটি প্রতিষ্ঠান।
বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে রাশিয়ান কর্মকর্তাদের বৈঠক

জেএসসি রাসু কারখানা পরিদর্শনের শুরুতে প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মি. আন্দ্রেই বুতকোর সঙ্গে বাংলাদেশ প্রতিনিধি দলের একটি সভা অনুষ্ঠিত হয়। করোনা মহামারির মধ্যেও বিশেষ ব্যবস্থাপনায় কারখানার উৎপাদন প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ সচল রাখা হয়েছিল বলে কারখানাটির ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষ রাষ্ট্রদূতকে অবহিত করে।

বাংলাদেশের প্রথম পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র রূপপুর প্রকল্পের কাজ যথা সময়ে সফলভাবে সম্পাদনের প্রত্যাশায় দেশের সবস্তরের মানুষ অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছে বলে রাষ্ট্রদূত উল্লেখ করেন। #