ডিমলায় ১ কিশোরের বিষপানে আত্মহত্যা


আসাদুজ্জামান পাভেল, ডিমলা (নীলফামারী) প্রতিনিধি : নীলফামারীর ডিমলায় নিজ বাড়িতে বিষপানে সুজন চন্দ্র রায় (১২) নামে এক কিশোর আত্মহত্যা করেছে বলে জানা গেছে। সুজন উপজেলার নাউতারা ইউনিয়নের শালহাটি গ্রামের অনিল চন্দ্র রায়ের ছেলে। দুপুরে লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য নীলফামারী আধুনিক সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠায় ডিমলা থানা ।

সোমবার (১৭-আগস্ট) এলাকাবাসী ও পরিবার সূত্রে জানা যায়, নিজের প্রয়োজনে তার ভাইয়ের কাছে মাত্র বিশ (২০) টাকা চেয়েছিলো কিন্তু টাকা দেয়নাই তার ভাই। আর সেই টাকা না পাওয়া সুজন তার ভাইয়ের সাথে অভিমান করে সবার অজান্তে সকাল আনুমানিক ১০ টায় হঠাৎ বিষ (গ্যাস-ট্যাবলেট) পান করলে তাকে দ্রুত উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসার জন্য নিয়ে আসলে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরী বিভাগে কর্তব্যরত ডাক্তার তার অবনতি বুঝতে পেরে উন্নত চিকিৎসার জন্য রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করেন।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের এ্যাম্বুলেন্স যোগে তাকে নিয়ে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে যাওয়ার উদ্দ্যেশে রওনা দিলে পথিমধ্যে তার মৃত্যু হয়। সেখান থেকে এ্যাম্বুলেন্স ড্রাইভার আব্দুল হাকিম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মাধ্যমে ডিমলা থানায় সংবাদ দিলে তাৎক্ষনিক সেখান থেকে লাশ ফিরিয়ে আনার নির্দেশ দেয়।

ডিমলা থানার (ভারপ্রাপ্ত) কর্মকর্তা সিরাজুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, কিশোর সুজন বিষপান করে আত্মহত্যা করেছে। লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ব্যাপারে ডিমলা থানায় একটি ইউডি মামলা দায়ের করা হয়। #