ঔষধ আছে, ডাক্তার নাই, বিদ্যুৎ নাই, সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ কি নাই ?


নিজস্ব প্রতিনিধি : বাংলাদেশ রেলওয়ে কর্তৃপক্ষের উদাসীনতা এবং অবহেলার কারণে দিনাজপুরের পার্বতীপুর রেলওয়ে হাসপাতালটির চিকিৎসাসেবা ভেঙে পড়েছে। ঔষধ আছে, ডাক্তার নাই, বিদ্যুৎ নাই জনবলের অভাবে চিকিৎসা নিতে আসা রোগীদের যেন দুর্ভোগের শেষ নেই।

বিষয়টি দেখার অনেকে থাকলেও করার কেউ নাই। হাসপাতালটির রিপিয়ারিং এর কাজ মাসাধিক কাল পূর্বে শেষ হলেও আজ অবধি বিদ্যুৎ সংযোগ না দেয়ার কারণে পর্যাপ্ত নতুন ঔষধ আসলেও তা রোগীদের সরবরাহ দিতে পারছেননা কর্তব্যরত ফার্মাসিস্ট মোঃ রোমজান আলী।

এদিকে ঔষধ না পেয়ে বিমুখ হয়ে ফিরে যাচ্ছেন বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত অসুস্থ রোগীসাধারণ। হাসপাতালের পিছনে একটি পরিত্যক্ত ভবনে দেখা মেলে ফার্মাসিস্ট রোমজান আলীর। এবিষয়ে তিনি জানান হাসপাতালে ঔষধ এসেছে তবে বিদ্যুৎ সংযোগ না থাকায় সেখানে ইচ্ছা থাকা সত্বেও আমি ঔষধ সরবরাহ দিতে পারছিনা। আর নষ্ট হয়ে যাওয়ার ভয়ে এই পরিত্যক্ত ভবনে ঔষধ আনতেও সাহস পাচ্ছিনা। সেকারণেই ঔষধ না পেয়ে রোগীরা ফিরে যাচ্ছে বলেও জানান।

কবে নাগাদ বিদ্যুৎ সংযোগ হবে সেবিষয়েও নিশ্চিত করে কিছু বলতে পারেননি তিনি। রেল অধ্যুষিত পার্বতীপুরের রেল শ্রমিক, কর্মচারীদের এই ডাক্তার বিহীন হাসপাতালটিতে একমাত্র ভরসা ফার্মাসিস্ট রোমজান আলী। শুধুমাত্র বিদ্যুৎ সংযোগ না হওয়ার কারণে অসুস্থ রোগীদের আর কতদিন এ দুর্ভোগ পোহাতে হবে সমাজের সচেতন মহল ও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ বিষয়টি ভেবে দেখবেন কি?