পঞ্চগড় আটোয়ারীতে ভারী বর্ষনে বন্যার কবলে উপজেলা পরিষদ


নিতিশ চন্দ্র বর্মন পঞ্চগড় প্রতিনিধি :
বৈশ্বিক মহামারী ভয়াল করোনা সংক্রমণ যখন বাংলাদেশে ব্যাপক ভাবে বিস্তার লাভ করছে, ঠিক তখনই কয়েক দিনের টানা ভারী বর্ষণ ও উজান থেকে নেমে পাড়াড়ী ঢলে আটোয়ারী উপজেলা পরিষদ ক্যাম্পাস জলমগ্ন সহ গোটা উপজেলার বেশিরভাগ এলাকায় হাঁটু থেকে কোমর পর্যন্ত পানিতে তলিয়ে গেছে। বাড়ি-ঘরে পানি প্রবেশ করায় উপজেলার প্রায় ৪০ হাজার মানুষ পানিবন্দি হয়ে পড়েছে। বন্যা কবলিত এলাকা ঘুরে দেখা যায়, উপজেলার নিম্নাঞ্চল গুলোর কয়েকটি গ্রামীন রাস্তাসহ বাড়ি-ঘর ৩ থেকে ৪ ফুট পানিতে তলিয়ে গেছে। এ অবস্থায় নিম্ন আয়ের মানুষ সহ উপজেলাবাসী পড়েছে চরম দুর্ভোগে। এলাকাবাসী জানান, করোনা পরিস্থিতে সৃষ্ট আর্থ-সামাজিক সংকটের আঘাতে মানুষকে যখন চিড়ে-চ্যাপ্টা করে রেখেছে, ঠিক তখন এবারের বন্যা ‘৮৮ সালের বন্যাকেও হার মানিয়েছে। বন্যা কবলিত কৃষকরা জানান, তাদের আগাম শাক-সবজি উঠতি আমন ধান সহ ক্ষেতের ফসল বন্যার পানিতে তলিয়ে গেছে ও পুকুরের মাছ ভেসে গেছে। বিপাকে পড়েছেন গবাদি পশু নিয়ে।এদিকে অবিরাম ভারী বর্ষনে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সরকারী বাসভবন সহ আবাসিক কোয়াটারগুলোর অবস্থা শোচনীয়। শুধু তাই নয়, নিষ্কাশন ব্যবস্থা না থাকায় সামান্য বৃষ্টিতে উপজেলা পরিষদের পুরো ক্যাম্পাস জলমগ্ন হয়ে পড়েছে। এর মধ্যে উপজেলা ক্যাম্পাসের পানি নিষ্কাশনের জন্য উপজেলা পরিষদ মসজিদ মার্কেট ঘেষে সম্প্রতি একটি ড্রেনেজ ব্যবস্থা করা হলেও ড্রেনের পানি নিষ্কাশনের ব্যবস্থা না থাকায় কার্যতঃ ড্রেনটি অকেজো হয়ে পড়েছে। এঅবস্থায় উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ তৌহিদুল ইসলাম বন্যা কবলিত এলাকা পরিদর্শন করেন। উপজেলা নির্বাহী অফিসার আবু তাহের মোঃ সামসুজ্জামান তাৎক্ষনিকভাবে বন্যা কবলিত এলাকা পরিদর্শন করেন এবং সংশ্লিষ্ট ইউপি চেয়ারম্যানদের সাথে নিয়ে প্রায় ১ হাজার পরিবারের মাঝে শুকনা খাবার পরিবেশন করেন।#