সৈয়দপুরে ঈদে মিলাদুন্নবীকে স্বাগত জানিয়ে মোটর সাইকেলের বিশাল আনন্দ শোভাযাত্রা


জয়নাল আবেদীন হিরো, নীলফামারী প্রতিনিধি : নীলফামারীর সৈয়দপুরে পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (দঃ)কে স্বাগত জানিয়ে বিশাল মোটর সাইকেল শোভাযাত্রা শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করেছে।

আশিকানে আলা হাযরাত ফাউন্ডেশন ওই বিশাল শোভাযাত্রাটি আয়োজন করে। সৈয়দপুরে উত্তরবঙ্গের সর্ববৃহত ও দেশের দ্বিতীয় সর্ববৃহত্তম অনুষ্ঠিত মিলাদুন্নবীকে স্বাগত জানিয়ে প্রতি বছর তারা এই মোটর শোভাযাত্রাটি আয়োজন করে আসছে। আহলে সুন্নাত ওয়াল জামায়াত পৌর শাখার সার্বিক সহযোগিতায় এবারো এই শোভাযাত্রায় শহরের প্রায় ৩শতাধিক মোটর সাইকেল অংশগ্রহণ করে।

গতকাল দুপুরে গোলাহাট রেলওয়ে কলোনী জামে মসজিদ ঈদগাহ মাঠ হতে বের হওয়া ওই বিশাল মোটর সাইকেল শোভাযাত্রাটিতে শহরের বিভিন্ন মসজিদ ও পাড়া মহল্লা থেকে ধর্মপ্রাণরা দলে দলে এসে যোগদান করে। এছাড়া আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাআতের সুফী মতাদর্শী বিভিন্ন অংগ সংগঠন আঞ্জুমানে গাউসিয়া, গাউসিয়া কমিটি, রেজা একাডেমী, আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাআত জেলা ও পৌর শাখা, আঞ্জুমানে আশরাফিয়া, নুর নাত কাউন্সিল, আল মাদিনা সুন্নী একাডেমী, কানযুল ইমান ইসলামিক মিশনসহ শহরের বিভিন্ন খানকাহ ও ধর্মীয় সংগঠনের হাজার হাজার ধর্মপ্রাণরা মোটর সাইকেল, পিকআপ নিয়ে অংশ নেয়। এসময় জাতীয় পতাকাসহ তারা কালেমা খচিত পতাকা বহন করে।

শহর প্রদক্ষিণ শেষে শোভাযাত্রাটি জিআরপি মোড়ে এসে সংক্ষিপ্ত আলোচনার পর মিলাদ, কিয়াম ও মোনাজাতের পর শেষ হয়। আলোচনায় বক্তব্য রাখেন সৈয়দপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আখতার হোসেন বাদল, সাবেক প্যানেল মেয়র হিটলার চৌধুরীসহ আহলে সুন্নাত ওয়াল জামায়াতের বিভিন্ন কর্মীরা। দোয়া পরিচালনা করেন হাফেজ মোমিনুল ইসলাম আল কাদেরী। আয়োজক কমিটির হিটলার চৌধুরী জানান, মিলাদুন্নবীকে স্বাগত জানিয়ে ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকে প্রতি বছর এই মোটর সাইকেল শোভাযাত্রাটি বের হয়ে আসছে। এবার প্রায় ৩শ এর অধিক সংখ্যক মোটর সাইকেল অংশগ্রহন করে এ শোভাযাত্রাটিকে সফল করেছে। প্রশাসনের পক্ষ থেকে সার্বিক সহযোগিতা থাকায় তিনি সকলকে ধন্যবাদ জানান। পরে সালাতো সালামের পর দেশ ও মানবজাতির কল্যানে করা মোনাজাত করা হয়।

উল্লেখ্য আগামী ৩০ অক্টোবর সৈয়দপুরে পালিত হবে উত্তরবঙ্গের সর্ববৃহত ও দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী।এবং এটিকে স্বাগত জানিয়ে প্রতিবছর মিলাদুন্নবীর আগের শুক্রবার বিশাল মোটর শোভাযাত্রাটি আয়োজন করে থাকে আশিকানে আলা হযরত ফাউন্ডেশন।