বড়পুকুরিয়া তাপ বিদ্যুত কেন্দ্রে স্থানীয় শ্রমিক নিয়োগ এর দাবিতে বিক্ষোভ সমাবেশ


পার্বতীপুর প্রতিনিধি :
পার্বতীপুর বড়পুকুরিয়া কয়লা ভিক্তিক তাপ বিদ্যুত কেন্দ্রে স্থানীয় শ্রমিকদের নিয়োগ এর দাবিতে বিক্ষোভ সমাবেশ আনুষ্টিত।

পার্বতীপুর বড়পুকুরিয়া কয়লা ভিক্তিক ৫২৫ মেগওয়াড বিদ্যুৎ কেন্দ্রে বড়পুকুরিয়া তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্র শ্রমিক অধিকার আন্দোলন পরিচালনা কমিটির অভিজ্ঞ স্থানীয় শ্রমিক নিয়োগের দাবিতে বিক্ষোভ অনুষ্ঠিত হয়।

আজ সোমবার সকাল ১০টায় বড়পুকুরিয়া তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের শ্রমিক অধিকার আন্দোলন কমিটির সভাপতি মোঃ হাবিবুর রহমান ও সাধারণ সম্পাদক মোঃ আবু সাঈদের নেতৃত্বে তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্র এলাকায় অভিজ্ঞ স্থানীয় শ্রমিক নিয়োগের দাবিতে এক বিক্ষোভ মিছির বাহির হয়। বিক্ষোভ মিছিল শেষে অভিজ্ঞ স্থানীয় শ্রমিক নিয়োগের দাবিতে বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সভাপতি মোঃ হাবিবুর রহমান তিনি বক্তব্যে বলেন আমাদের শ্রমে এবং ঘামে গড়ে উঠেছে এই তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্র। আমরা দীর্ঘদিন উন্নয়ন কাজে নিয়োজিত থাকায় দক্ষ যোগ্য ও অভিজ্ঞতা অর্জন করেছি। উৎপাদন কাজে নিয়োগ পাওয়ার অগ্রাধিকার আমাদেরই। আমরা শ্রমিকেরা দীর্ঘদিন ধরে নিয়মতান্ত্রিকভাবে শান্তিপূর্ণ আন্দোলন পালন করে আসছি। জেলা প্রশাসক উদ্যোগী হয়ে তৎকালীন পার্বতীপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার কে আহবায়ক করে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করেন। ঐক্যমতের ভিত্তিতে ৩রা মে ২০১৮ইং তারিখে চুক্তি স্বাক্ষর হয়। আমরা নিয়োগের দাবি করছি। তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রে ১৪৩ জনের মধ্যে নিয়োগ দেওয়া হয় ২০জনকে। বাকি ১২৩ জনের এখনো নিয়োগ দেওয়া হয়নি। অবিলম্বে ১৪৩ জন শ্রমিককে নিয়োগ দেওয়ার দাবি জানাচ্ছি।

আন্দোলন কমিটির সাধারণ সম্পাদক আবু সাঈদ বলেন, স্থানীয় শ্রমিকেরা সাড়ে ৩ বছর অধিক কাল ধরে নিয়োগের দাবিতে আন্দোলন করে আসছি। কিছু সংখ্যক শ্রমিক নিয়োগ হওয়ার পর বৈশ্বিক মহামারী করোনার কারণে নিয়োগের প্রক্রিয়াটি সাময়িক স্থগিত হয়। আমরা দ্রুত নিয়োগের দাবি করছি। গত ১১/১১/২০২০ ইং তারিখে প্রধান প্রকৌশলী বরাবর নিয়োগের দাবিতে একটি আবেদন করি। সেই আবেদনে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি ও সাবেক মন্ত্রী মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান এমপি এবং পার্বতীপুর উপজেলা চেয়ারম্যান মোঃ হাফিজুল ইসলাম মানবিক দিক বিবেচনা করে তাদেরকে নিয়োগ প্রদানের সুপারিশ করেন। মাননীয় এমপির প্রতিশ্রুতির পরিপ্রেক্ষিতে আমরা আপাতত আন্দোলন স্থগিত করছি। আমাদের ন্যায্য অধিকার আদায় না হওয়া পর্যন্ত আমরা আন্দোলন অব্যাহত রাখব। এ জন্য দায়ভার বড়পুকুরিয়া তাপ বিদ্যুৎ কর্তৃপক্ষকে বহন করতে হবে। বিক্ষোভ সমাবেশে আন্দোলন কমিটির প্রায় ২শতাধিক নেতা কর্মী উপস্থিত ছিলেন।#