পার্বতীপুরে পান চাষে সফলতা


শাহাজুল ইসলাম, পার্বতীপুর :
দিনাজপুরের পার্বতীপুর উপজেলার ৮ নং হাবড়া ইউনিয়নে পান চাষে বিপুল সাড়া পড়েছে। এখানকার মাটি বেলে দোঁয়াশ এবং পান চাষ লাভবান হওয়ায় এখানে পানের বর (পান ক্ষেত) তৈরী করে পান চাষ করছেন কৃষক।

গতকাল অত্র এলাকায় গিয়ে ওই ইউনিয়নের মরনাই, ঝিনাইকুড়ি, শংকরপুর, ডাঙ্গাপড়া, পানবাজার গ্রাম ঘুরে ব্যাপক পানের বর দেখা যায়। এটি অনেক লাভজনক কৃষি বলে জানান এ এলাকার কৃষক, বাবু , নিখিল চন্দ্র ও গোপাল চন্দ্র। কৃষক নিখল চন্দ্র বলেন, নুতন ভাবে এর চাষ করতে সাধারনত ফেব্রুয়ারী-মার্চ মাসে লাগানো হয়। একবার লাগালে কমপক্ষে ১০ বছর একই বর থেকে পান উঠানো যায়। পান গাছের ডগা কেটে উঁচু জমিতে গোবর সার বা কম্পোষ্ট সার মাটিতে মিশিয়ে মাটি তৈরী করতে হয়। চতুর্দিকে খড়ের ঘেরা ও উপরে ছাউনি দিয়ে পানের বর তৈরী করতে হয়। কারন, প্রচন্ড শীত ও রোদের তাপ থেকে রক্ষার জন্য এ ছাউনি দিতে হয়। সেখানে গিয়ে দেখা মেলে পার্বতীপুর উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা আরিফ হেসেনের সাথে। তিনি পান চাষ সম্পর্কে বলেন, পান চাষ লাভজনক হওয়ায় এ এলাকার কৃষকরা পান চাষে ঝুকে পড়েছেন। এখানে প্রায় ৬/৭ একর জমিতে ১৭০ টি পানের বর (ক্ষেত) আছে। তনি এক প্রশ্নের জবাবে বলেন, পান চাষ মূলতঃ মসলা জাতের মধ্যে পড়ে, তাই সরকারীভাবে এ ফসলের উপর কোন প্রণোদনা নেই। তবে আমরা কৃষকদেরকে পান ক্ষেত রোগ বলাই থেকে রক্ষার জন্য পরামর্শ দিয়ে থাকি। #