পার্বতীপুরে স্বাস্থ্যবিধি লঘংন করে টিসিবি পন্য বিক্রি : করোনাভাইরাস সংক্রমণ বৃদ্ধির আশঙ্কা


সোহেল সানী, পার্বতীপুর :
নিয়ন্ত্রণহীন ক্রেতার ভীড়ে দিনাজপুরের পার্বতীপুর পৌরসভায় খোলা বাজারে টিসিবির পন্য বিক্রি করায় উপজেলায় করোনা সংক্রমনের ঝুকি বাড়ছে।

আজ বুধবার বিকেল ৪টার দিকে শহরের রোস্তমনগর মহল্লায় ও গত মঙ্গলবার পার্বতীপুর উত্তর-পশ্চিম মৎস্য হ্যাচারী মোড়ে মাস্কবিহীন ক্রেতাদের প্রচন্ড ভীড়ের মধ্যে ডিলাদের টিসিবির পণ্য বিক্রি করতে দেখা যায়। আশপাশের গ্রাম ও শহরের বিভিন্ন মহল্লা থেকে আসা শতশত লোক বিক্রয় স্থলে ভীড় জমায়। এতো মানুষের ভীড় ঠেলে টিসিবি বিক্রয় করা প্রায় অসম্ভব হয়ে ওঠে। এতে নিরাপদ দূরত্ব বজায় রাখা সম্ভব না হওয়ায় প্রাণঘাতি করোনা ভাইরাস সংক্রমণের গুরুতর ঝুঁকি সৃষ্টি হয়।

পার্বতীপুরের টিসিবির ডিলার মোজাফর হোসেন সাদ্দামের বিক্রয় স্থলে ট্যাগ অফিসারের দায়িত্বে থাকা উপজেলা সহকারি শিক্ষা অফিসার মোঃ আল সিরাজ স্বীকার করেন- ঝুকিপূর্ণ পরিবেশে নতুন বাজার এলাকায় ডিলার সাদ্দাম হোসেন ও হ্যাচারী মোড়ে ডিলার মেসার্স মাহবুবব এন্টারপ্রাইজের মাহবুবুর রহমান উম্মুক্তভাবে ন্যায্য মূলে টিসিবির চিনি, তেল, ডাল ও পিয়াজ বিক্রি করছিলেন। তবে, আগামী দিনগুলোতে যাতে কঠোরভাবে স্বাস্থ্যবিধি মেনে টিসিবির পন্য বিক্রি করা হয় সে জন্য ডিলারদের নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

এ ব্যাপারে পার্বতীপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) নাশিদ কায়সার রিয়াদ বলেন, করোনা ভাইরাস সংক্রমণের ঝুকি এড়াতে নিরাপদ দূরত্ব মেনে টিসিবির পন্য বিক্রি করতে ব্যর্থ হলে ডিলারদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এ বিষয়ে ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশ (টিসিবি)’র রংপুর আঞ্চলিক অফিসের উর্দ্ধতন কার্য নির্বাহী প্রতাপ কুমার জানান, টিসিবির পণ্য বিক্রিতে ক্রেতা ও বিক্রেতা উভয়কে মাস্ক পরে কঠোরভাবে স্বাস্থ্য বিধি মেনে টিসিবির পন্য বিক্রির জন্য ডিলাদের নির্দেশ দেয়া হয়েছে। কোনভাবে স্বাস্থ্যবিধি লংঘন করলে তাদের ডিলারশীপ বাতিল করার করার মতো কঠোর সিদ্ধান্তও নেয়া হতে পারে। #