তিন জেলায় বজ্রপাতে নিহত ১১


অনলাইন ডেস্ক : দেশের তিনটি জেলায় সোমবার বজ্রপাতে কমপক্ষে ১১ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। এর মধ্যে চাঁপাইনবাবগঞ্জে পাঁচজন, সিরাজগঞ্জে চারজন এবং চট্টগ্রামের আনোয়ারায় মারা গেছেন দুজন।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ গোমস্তাপুর ও ভোলাহাট উপজেলায় বজ্রপাতে পাঁচজনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে সদর উপজেলায় দুজন, গোমস্তাপুর উপজেলায় দুজন ও ভোলাহাট উপজেলায় একজন মারা যান।

নিহতরা হলেন সদর উপজেলার দেবীনগর ইউনিয়নের নামোহড়মা গ্রামের রবিউল ইসলাম, কালীনগর সাবানিয়াপাড়া গ্রামের আশরাফুল হকের ছেলে আলামিন (১৩), গোমস্তাপুরে রহনপুর পৌরসভার হুজরাপুর মহল্লার বিপ্লব আলীর মেয়ে লিলি খাতুন খুশি (১২) ও গোমস্তাপুর ইউনিয়নের নশীবন্দীনগর গ্রামের নাজমুল হাসানের মেয়ে সাদিয়া খাতুন (১০) ও ভোলাহাট উপজেলার জামবাড়িয়া ইউপির কৃষ্ণপুর হাড়িয়াবাড়ি গ্রামে আকালু হাজির ছেলে আজিজুল হক (৫৫)।

সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়া ও শাহজাদপুরে বজ্রপাতে চারজনের মৃত্যু হয়েছে। সোমবার বিকালে শাহজাদপুর উপজেলা চিথুলিয়া, দুগলি ও উল্লাপাড়ার পূর্ণিমাগাঁতী ইউনিয়নে কৃষ্ণপুর এলাকায় এসব দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- উপজেলার গালা ইউনিয়নের দুগলি গ্রামের আজম ব্যাপারীর পুত্র নবম শ্রেণির স্কুলছাত্র নাজমুল (১৫), কায়েমপুর ইউনিয়নের চিথুলিয়া গ্রামের আজগর আলীর পুত্র হাসেম আলী (২৫) ও সোলাইমান মোল্লার স্ত্রী ছাকেরা বেগম (৫৬) এবং উল্লাপাড়া উপজেলার পশ্চিম কৃষ্টপুর গ্রামের মোশারফ হোসেনের মেয়ে ও গয়হাট্টা সালেহা ইসহাক উচ্চ বিদ্যালয়ের ১০ম শ্রেণির ছাত্রী মোহনা খাতুন (১৭)।

চট্টগ্রামের আনোয়ারা উপজেলায় বজ্রপাতে ইলিয়াছ (৫০) ও কাসেম (৪০) নামে দুই নির্মাণ শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। রবিবার রাতে উপজেলার বটতলী ইউনিয়নের পশ্চিম বরৈয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে। পুলিশ সোমবার ভোরে লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে গেছে।