সিলেটে চার বার ভূমিকম্প, বিশেষজ্ঞরা যা বলছেন


সিলেট প্রতিবেদক : সিলেটে একই দিনে চার বার মৃদু ভূমিকম্প অনুভূত হয়েছে। স্বল্প সময়ের ব‌্যবধানে একাধিকবার ভূমিকম্প হওয়ায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে নগরের জনসাধারণের মাঝে। তবে ভূমিকম্পের সময় আতঙ্কিত না হয়ে জীবন রক্ষার্থে যা যা প্রয়োজন সেই বিষয়ে পরামর্শ দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

শনিবার (২৯ মে) সকাল থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত চার বার ভূমিকম্প অনূভূত হয়েছে।

সিলেটের আবহাওয়া অধিদপ্তরের নিয়ন্ত্রণ কক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, চতুর্থ দফার কম্পনের মাত্রা ও উৎপস্থিস্থল জানা যায়নি। তবে এর আগে বেলা ১১টা ৫০ মিনিটে যে ভূমিকম্প হয় তার উৎপত্তিস্থল ছিল সিলেট সদরে। আর এর মাত্রা ছিল ৪ দশমিক ১।

আবহাওয়াবিদ সাঈদ আহমদ চৌধুরী বলেন, ‘তিনবার ভূমিকম্প হলেও ঢাকা অফিসের সার্ভারে হিসাবে ১০টা ৫০ মিনিটের ভূমিকম্প ধরা পড়ে। এর মাত্রা ছিলো ৪ দশমিক ১। আর এর উৎস সিলেট শহরেই।’

এদিকে, ঢাকার আবহাওয়া অফিস থেকে আবহাওয়াবিদ এ কে এম নাজমুল হক রাইজিংবিডিকে বলেন, ‘আজ সকাল থেকে এখন পর্যন্ত ৪ বার ভূমিকম্প অনুভূত হয়েছে। প্রথমবার ভূমিকম্প ৫০ সেকেন্ড, দ্বিতীয় বার ৫৩ সেকেন্ড স্থায়ী ছিলো। বেলা সাড়ে ১১টার দিকে যে ভূমিকম্প হয় তার মাত্রা ছিল ২.৮। এছাড়া, সর্বশেষ ভূমিকম্প হয় দুপুর ১টা ৫০ মিনিটে।’

ভূমিকম্প হলে করণীয় বিষয়ে তিনি জানান, দেশে ভূমিকম্পন প্রবণ যে এলাকাগুলো রয়েছে সিলেট তারমধ‌্যে অন‌্যতম। ভূমিকম্প হলে আতঙ্কিত না জীবন রক্ষার্থে যা যা করণীয় তা করতে হবে। নিজেকে ধীরস্থির ও শান্ত রাখতে হবে। বাড়ির বাইরে থাকলে ঘরে প্রবেশ করা যাবে না। বহুতল দালানের ভেতরে থাকলে টেবিল বা খাটের নিচে চলে যেতে হবে। জানালা বা ছাদ থেকে লাফ দিয়ে নামার চেষ্টা করা যাবে না।

শনিবার (২৯ মে) সকাল ১০টা ৩৭ মিনিটে প্রথমে মৃদু ভূমিকম্প অনুভূত হয় সিলেটে। এরপর সকাল ১০টা ৫২, ১১টা ৩০ মিনিট ও সর্বশেষ ১টা ৫০ মিনিটে ভূমিকম্প হয়। ভূমিকম্প অনুভূত হওয়ার পর অনেকে বাসা থেকে বেরিয়ে সড়কে আসেন। তবে তাৎক্ষণিক কোনো ক্ষয়ক্ষতির খবর পাওয়া যায়নি।

সিলেট সদর থেকে তাসনুভা পারভীন বিভা নামে এক শিক্ষার্থী বলেন, ‘হঠাৎ দেখি মাথাটা ঘুরছে। আমি ভেবেছি শরীরটা দুর্বলের জন‌্য এমন হয়েছে। পরে শুনি ভূমিকম্প। একই দিনে কেন যে বার বার ভূমিকম্প হচ্ছে, বুঝছি না। এর আগে কখনো এমন হয়নি।’

মুরারিচাঁদ (এমসি) কলেজের ইংরেজি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান প্রফেসর মো. শাফিউল আলম তার ফেসবুকে লিখেছেন, ‘সিলেটে পুনঃপুন ভূমিকম্প আমাদের হৃদকম্প বাড়িয়ে দিচ্ছে। আল্লাহ আমাদের সবাইকে নিরাপদে রাখুন।’

খালেদ আহমদ নামে একজন লিখেছেন, ‘সিলেট শহর থেকে পালিয়ে যাওয়া ছাড়া উপায় নেই। সকাল থেকে এখন পর্যন্ত বেশ কয়েকবার ভূমিকম্প অনুভূত হলো। অবাক করা বিষয় সিলেট শহরের বাইরে আর কোথাও হচ্ছে না।’ #